Home / পড়ালেখা / যে নিয়মগুলো অনুসরণ করলে পরিসংখ্যানে জিপিএ- ৫ পাওয়া সহজ
যে নিয়মগুলো অনুসরণ করলে পরিসংখ্যানে জিপিএ- ৫ পাওয়া সহজ

যে নিয়মগুলো অনুসরণ করলে পরিসংখ্যানে জিপিএ- ৫ পাওয়া সহজ

প্রশ্নের তুলনায় উপপাদ্য এবং গাণিতিক সমস্যাবলির প্রতি গুরুত্ব দেওয়া উচিত। কারণ বর্ণনামূলক প্রশ্নের চেয়ে উপপাদ্য এবং গণিতের উত্তর দিলে পূর্ণ নাম্বার পাওয়া যায়।

পরিসংখ্যান বিষয়ে এবং পরীক্ষায় ভালো করতে হলে যে নিয়মগুলো মেনে চলতে হবে সে বিষয়ে পরামর্শ দিয়েছেন, নূর নবী মানিক

পরিসংখ্যান প্রথম পত্রের জন্য কেন্দ্রীয় প্রবণতার পরিমাপ, বিস্তার পরিমাপ (পরিঘাত, বঙ্কিমতা ও সূচালতা), সংশ্লেষণ ও নির্ভরণ অধ্যায় তিনটি গুরুত্বপূর্ণ। তবে সংক্ষিপ্ত প্রশ্নের জন্য প্রথম ৫টি অধ্যায় ভালভাবে পড়তে হবে। দ্বিতীয় পত্রের জন্য গুরুত্বপূর্ণ অধ্যায়গুলো হচ্ছে-সম্ভাবনা, সম্ভাবনা বিন্যাস ও সূচক সংখ্যা। পরিক্ষার্থীরা এই মুহূর্তে যেভাবে প্রস্তুতি নিবে তা হলো- সাজেশন ভিত্তিক পড়াশোনা, Chapter বাছাই করে পড়া, বারবার অনুশীলন করা এবং না দেখে মুখস্ত লেখা। এ বিষয়ে জিপিএ-৫ পেতে হলে সকল প্রশ্নের উত্তর সুন্দর/স্পষ্টভাবে লিখতে হবে।

যারা দুর্বল তাদের এখন উচিত হবে সকল বোর্ডের প্রশ্নগুলো বারবার অনুশীলন করা। নিয়মিত Model test দিতে হবে এবং সব রকম মানসিক চাপমুক্ত থাকতে হবে- মোটামুটি এই নিয়মগুলো অনুসরণ করলে জিপিএ-৫ পাওয়া সহজ। তবে কয়েকটি বিষয়ে শিক্ষার্থীরা সবচেয়ে বেশি ভূল করে তা হলো- প্রশ্নের ধরন অনুযায়ী উত্তর না লিখা। ভাল করে প্রশ্ন পড়ে তারপর উত্তর করতে হবে।

এছাড়া গাণিতিক সমস্যাবলি (অংক) সমাধানের ক্ষেত্রে তাড়াহুড়া করতে গিয়ে অনেকে ভুল করে। আস্তে আস্তে সতর্কভাবে অংকের সমাধান করতে হবে।

যদি কোনো পরীক্ষার্থী টেস্ট পেপার থেকে বিগত ৫-৬ বছরের প্রশ্ন সলভ করে তাহলে ধরে নেওয়া যায় যে ৮০% এর মতো প্রশ্ন সে কমন পাবে। আর গুরুত্বপূর্ণ কলেজগুলোর টেস্টের প্রশ্ন সলভ করতে পারলে ধরে নেয়া হয় অধিকাংশ প্রশ্নই সে কমন পাবে। ব্যবহারিক পরীক্ষার জন্য যেহেতু ২৫ নাম্বার বরাদ্দ আছে। তাই A+ পেতে হলে অবশ্যই ব্যবহারিক পরীক্ষায় সমান গুরুত্ব দিতে হবে। তবে আমি বলব এই মুহূর্তে ব্যবহারিক পরীক্ষার কথা না ভেবে তত্ত্বীয় পরীক্ষার জন্যই প্রস্তুতি নিতে হবে। পরীক্ষা শেষে যে সময়টুকু পাওয়া যাবে সেই সময় ভালভাবে প্রস্তুতি নিলে ব্যবহারিক পরীক্ষায় কাঙ্ক্ষিত নাম্বার উঠানো সম্ভব।

About Parves Ahmed

Parves Ahmed
অনুকরণ নয়, অনুসরণ নয়, নিজেকে খুঁজে চলেছি, নিজেকে জানার চেষ্টা করছি, নিজের পথে হেটে চলছি॥

Check Also

আপনার চাকরি পাওয়ার পথে কাঁটা হয়ে দাঁড়াবে ১০টি কাজ

আপনার চাকরি পাওয়ার পথে কাঁটা হয়ে দাঁড়াবে ১০টি কাজ

চাকরির ইন্টারভিউয়ের জন্য ব্যাপক প্রস্ততি থাকার পরও চাকরিটা হয় না। আমাদের অনেকই বড় বড় ডিগ্রী …

2 comments

  1. As you will inevitably learn on your path to losing weight, effective weight loss is not only about watching what you eat, but much more about changing your lifestyle. This means changing your habits and how you approach your day-to-day life. Read this information to help you throughout the process.

  2. Doctor Who is now considered a British Institute and has come a long way since it first aired on November 23rd 1963. The very first show saw the Doctor travel 100,00 years into the past to help some dim cavemen discover light. After 26 seasons and seven Doctors later the series came off our screens in 1989 much to the disappointment of the huge devoted fanbase. In 1996 an attempt was made to revive Doctor Who but it wasnt until June 2005 when it came back with a vengeance with Christopher Eccleston as the ninth Doctor that put the series back on the map as it were. It then went on for 5 years with David Tenant portraying the Doctor until 2010 when Matt Smith took over the role. Today it is still a great family show and has attracted many new fans.

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *