Home / ফিচার / আত্মনির্মাণ / পরীক্ষা কে কেন ভয় পাই আমরা?
পরীক্ষা কে কেন ভয় পাই আমরা

পরীক্ষা কে কেন ভয় পাই আমরা?

ছাত্রজীবন সুখের জীবন যদি না থাকতো?

পরীক্ষা। অধিকাংশ ছাত্রের জীবনে যেন এক মূর্তিমান আতঙ্ক। শুনলেই মনে হয় এই বুঝি হালুম করে হামলে পড়বে ঘাড়ের ওপর। অথচ পরীক্ষা মানে কিন্তু সুযোগ। নিজের যোগ্যতাকে প্রমাণ করার, ওপরের ক্লাসে উন্নীত হবার। একবার ভাবুন আপনাকে কোনো পরীক্ষা দিতে হবে না। সারাবছর আরামসে ঘুরে বেড়াবেন। কিন্তু বিনিময়ে বছরের পর বছর আদু ভাইয়ের মতো পড়ে থাকবেন একই ক্লাসে। কেমন লাগবে তখন? নিশ্চয়ই খুব ভালো না।

পরীক্ষা কে কেন ভয় পাই আমরা?

প্রথম কারণটাই হলো আমাদের প্রস্তুতির অভাব। আর এর সমাধান একটাই । তাহলো বছরের প্রথম থেকে রুটিন করে পড়া। ভালো রেজাল্টের জন্যে করণীয়গুলো অনুসরণ করা। মেডিটেশনে এ রেজাল্টের মনছবি দেখা। ভয়টা অনেক সময় আশপাশ থেকেও সংক্রমিত হতে পারে আপনার মনে। এটা সাধারণত হয় খুব ভালো বা খুব খারাপ প্রস্তুতি যাদের, তাদের সাথে কথা বললে। যদি এমন হয় যে আপনি এ ধরনের ছাত্রছাত্রীদের দ্বারা সহজেই প্রভাবিত হন তাহলে এদের এড়িয়ে চলাই ভালো।কারো কারো ক্ষেত্রে ভয়টা আসে প্রচণ্ড মানসিক চাপ থেকে। যদি পরীক্ষায় ভালো না করি, তাহলে, তো ঢি ঢি পড়ে যাবে! আমাকে সবাই কী ভাববে! – এ জাতীয় ভাবনা যখন মারাত্মক আকার ধারণ করে, তখনই আমরা পরীক্ষাভীতিতে আক্রান্ত হই। এজন্যে নেতিচিন্তার মেডিটেশনটি করতে পারেন। পরীক্ষা অবশ্যই গুরুত্বপূর্ণ। কিন্তু পরীক্ষাটাই সব নয়।

আমার পড়ালেখাতেই আনন্দ

কথাটা খুব ভালো। কিন্তু দুঃখের ব্যাপার ক্লাসের ফার্স্টবয় ফার্স্টগার্ল টাইপের কয়েকজন বাদে অধিকাংশ ছাত্র-ছাত্রীই একথাটা বলতে পারেন না। কারণ তারা পড়ার আনন্দ খুঁজে পান না। পড়াশোনাটা তাদের কাছে নেহায়েত পরীক্ষা পাশের প্রয়োজন। আর এর মূল কারণ হলো মনোযোগ দিতে না পারা। আনন্দের উৎস : মনোযোগ এখন অনেক কোচিং সেন্টার খুলছে যারা বলে এখানে অমনোযোগী ছাত্র-ছাত্রীদের বিশেষ যত্ন সহকারে পড়ানো হয়। তাহলে অমনোযোগী ছাত্র-ছাত্রী বলে কি বিশেষ কোনো গোষ্ঠী আছে? আসলে তা নয়। মনোযোগ বা মেন্টাল এনার্জি প্রয়োগ করার ক্ষমতা প্রত্যেকেরই আছে। ক্লাসের সবচেয়ে অমনোযোগী ছেলেটা যে সারাদিন ক্রিকেট নিয়েই থাকে, তাকে দেখুন টিভিতে ক্রিকেট খেলা দেখার সময়। কিরকম মগ্ন আর মনোযোগী! আপনাদের কথাই ভাবুন না! পরীক্ষার আগে যখন ৪ মাসের পড়া করতে হবে ১ সপ্তাহে, তখন কি গভীর আর অখণ্ড মনোযোগ দিয়ে আপনি পড়তে পারেন। মনোযোগের উপাদান মাত্র দুটি। এক, আগ্রহ; দুই, পরিবেশ।

About Parves Ahmed

Check Also

দৃষ্টিভঙ্গি জীবন বদলায়

কেবল দৃষ্টিভঙ্গিই পারে আপনার জীবন বদলে দিতে

চিন্তা-ভাবনার উন্নতি করলে আপনার কাজেরও উন্নতি হবে। আপনি সফল হবেন। নিজেকে মূল্যায়ন করুন এতে গুরুত্বপূর্ণ …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *