Home / কেরিয়ার / আত্মকর্মসংস্থান / ফ্রিল্যান্স কাজ | ঘরে বসে বাড়তি আয় (৭ম পর্ব)
ফ্রিল্যান্স কাজ ঘরে বসে বাড়তি আয় ৭ম পর্ব

ফ্রিল্যান্স কাজ | ঘরে বসে বাড়তি আয় (৭ম পর্ব)

বিশ্বায়নের এই যুগে বিশ্বের সাথে তাল মিলিয়ে এদেশেও ফ্রিল্যান্স কাজের অনেক ক্ষেত্রে তৈরি হয়েছে। এখন অনেকেই একটি প্রতিষ্ঠানে যুক্ত না থেকে ফ্রিল্যান্স হিসেবে একাধিক প্রতিষ্ঠানে কাজ করছেন। এক্ষেত্রে সৃজনশীল ক্ষেত্রগুলি প্রাধান্য পাচ্ছে যেমন- লেখালেখি, ইন্টিরিয়র ডিজাইন, ফ্যাশন ডিজাইন, গ্রাফিক্স এবং ওয়েব কন্টেন্ট রাইটিং বর্তমানে এমনকি মার্কেটিংয়েরও ফ্রিল্যান্স করা সম্ভব।

লেখালেখি বিষয়ে আগ্রহ এবং নানা বিষয়ে জানা থাকলে ফ্রিল্যান্স সাংবদিকতা একটি সম্মানজনক কাজ। এক্ষেত্রে সংবাদ এবং ফিচার পাতাগুলি দেখে লেখার ধরণ এবং বিষয় বুঝতে হবে। এরপর তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করেই শুরু করতে পারেন লেখালেখির পেশা।

ইন্টিরিয়র ডিজাইনিং বা ডেকোরেশন সম্পর্কে ধারণা থাকলে শুরুতে পরিচিত আত্মীয় – বন্ধু বা কোনো অফিসে যোগাযোগ করতে হবে। আবার ইন্টিরিয়র বিষয়ে যারা কাজ করে তাদের সঙ্গেও যোগাযোগ করুন। এক্ষেত্রে নতুনত্ব এবং সৃজনশীল চিন্তাধারা মূলধন হিসেবে কাজ করে।

একইভাবে ফ্যাশন ডিজাইনিংয়ের কাজ করতে পারেন। এছাড়া বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান অনেক সময় বিভিন্ন বিষয়ে ডিজাইন আহ্বান করে। কর্তিৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করে এক্ষেত্রে ঘরে বসেই কাজটি করতে পারেন।

গ্রাফিক্সের কাজ জানা থাকলে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে ফ্রিল্যান্স কাজ করা যায়। এজন্য আপনাকে বিভিন্ন প্রকাশনী, বিজ্ঞাপনী সংস্থায় যোগাযোগ করতে হবে।

ইংরেজি ফরাসী, আরবী, জার্মানী, জাপানি বা চীনা ভাষা জানা থাকলে অনুবাদের কাজ করতে পারেন। অনুবাদের কাজ করার জন্য বিভিন্ন দূতাবাস এবং তাদের সাংস্কৃতিক কেন্দ্রে যোগাযোগ করতে হবে। এছাড়া বিভিন্ন পত্র-পত্রিকা এবং পুস্তক প্রকাশনী প্রতিষ্ঠানেও এ বিষয়ে কাজ করার সুযোগ আছে।

About Muhammad Faisal

Muhammad Faisal
একরাশ স্বপ্ন মুঠোয় করে হাটছি অবিরাম..........

Check Also

ফুড সাপ্লাই ঘরে বসে বাড়তি আয় ৬ষ্ঠ পর্ব

ফুড সাপ্লাই | ঘরে বসে বাড়তি আয় (৬ষ্ঠ পর্ব)

মানুষের পাঁচটি মৌলিক চাহিদার মধ্যে অন্যতম হলো খাদ্য, যা মানুষ প্রতিনিয়ত ক্রয় করে। কাজেই ফুড …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *