Home / হাতে কলমে / আদবকেতা / মোবাইলে কথা বলার কৌশল
মোবাইলে কথা বলার কৌশল

মোবাইলে কথা বলার কৌশল

সহজলভ্যতার কারণে মোবাইল এখন যোগাযোগের সবচেয়ে জনপ্রিয় মাধ্যম। আর এ কারণেই মোবাইল ফোন এখন সবার  হাতে  হাতে। শুধু দেশে নয়, দেশের বাইরে যোগাযোগের ক্ষেত্রেও এটি এখন সহজ ও সুবিধাজনক। তাই এই প্রযুক্তির ব্যবহার দিন  দিন বেড়েই চলেছে। আর বিপদটা এখানেই। কারণে-অকারণে  মিস কলের যন্ত্রণা। রাত দুপুরে ফোনের অত্যাচার। উৎকট  রিং টোন! অবস্থা এমন দাঁড়িয়েছে যে, মোবাইল ব্যবহারকারীদের জন্য সরকার আইন পর্যন্ত করতে বাধ্য হয়েছে। যারা আইন তো দূরের কথা সাধারণ নিয়মগুলো জানেন  না বা জানলেও মানেন না তাদের জন্য রইল কিছু পরামর্শ।

যা করা উচিত

  • কাইকে ফোন করলে প্রথমেই জেনে নিন তিনি ব্যস্ত আছেন কি না।
  • যে কোনো মিটিং, সেমিনার অথবা শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ক্লাস চলাকালে শিক্ষক ও শিক্ষার্থী উভয়েরই উচিত মোবাইল ফোন অফ বা সাইলেন্ট মুডে রাখা।
  • কাইকে ফোন করে ভয়েস মেসেজ মুড পেলে ঘাবড়ে যাবেন  না। সংক্ষেপে  আপনার মেসেজ রাখুন।
  • কারো সাথে কথা বলার সময় আরেকটি কল এলে ‘মাফ করবেন’  বা  দুঃখিত’ বলে অন্য কলটি রিসিভ করবেন।
  • ফোনে কথা বলতে বলতে হাঁচি বা কাশি এলে, মোবাইল দূরে সরিয়ে হাঁচি বা কাশি দিন। পড়ে ’দুঃখিত বলুন।
  • শ্রুতিমধুর রিংটোন ব্যবহার করুন যা থেকে আপনার সুরুচির পরিচয় পাওয়া যাবে।
  • উপাসনালয়, জিম, পার্লার বা এধরনের স্থানে মোবাইল অফ রাখাই ভালো।
  • কেউ ফোন করলে ব্যস্ততার কারণে কথা বলতে না পারলে কাজ শেষে তাকে কলব্যাক করুন।

যা করা উচিত নয়

  • অকারণে কাউকে মিস কল দিয়ে বা ফোন করে বিরক্ত করবেন না।
  • খুব জরুরি দরকার না হলে কাউকে সকাল আটটার আগে এবং রাত এগারোটার পরে ফোন করবেন না।
  • অনেকক্ষণ কাউকে কল ওয়েটিং এ রাখবেন না।
  • কাউকে সামনে বসিয়ে একের পর এক ফোন বা মেসেজ পাঠাবেন না।
  • যে কোনো আড্ডায় বা বাড়িতে অতিথি এলে তাদের বসিয়ে রেখে অনেকক্ষণ ধরে মোবাইলে কথা বলবেন না।
  • অপরিচিত কাউকে মজা করার জন্য মিন কল বা ফোন বা মেসেজ পাঠিয়ে বিরক্ত করবেন  না। কাউকে বিরক্ত করার মাঝে আনন্দ নেই। মনে রাখবেন, আপনার আচরণই আপনার ব্যক্তিত্বের পরিচায়ক।
  • কাউকে কখনোই অশালীন মেসেজ দেবেন না।
  • মোবাইলে ক্যামেরা থাকলে বিনা অনুমতিতে কারো ছবি তুলবেন না।
  • মোবাইলে রিংটোন খুব জোরে রাখবেন না।
  • কারো অজান্তে বা বিনা অনুমতিতে তার মোবাইল মেমোরি চেক করবেন না।
  • অনেকের মাঝে বা কোনো সমাবেশে মোবাইলে খুব জোরে কথা বলবেন না। খুব দরকার হলে দূরে গিয়ে কথা বলুন।
  • গাড়ী চালানোর সময় অথবা ব্যস্ত রাস্তার হাঁটতে হাঁটতে মোবাইলে কথা বলবেন না।
  • কারো ফোন বুক মেমোরি থেকে বিনা অনুমতিতে কোনো নাম্বার  সংগ্রহ করবেন না।
  • অন্যের মোবাইল থেকে লুকিয়ে মেসেজ পড়বেন না।
  • শুধু মানুষকে দেখানোর জন্য অকারণে সবার সামনে মোবাইল প্রদর্শন করবেন না।
  • ইনকামিং কলের ক্ষেত্রে আপনার কথা শেষ হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে সংযোগ বিচ্ছিন্ন করবেন না।
  • শিশুদের কাছে মোবাইল রাখবেন না।
  • যেখানে-সেখানে বা টাকার মধ্যে মোবাইল নাম্বার লেখা থেকে বিরত থাকুন।
  • কেউ আপনাকে আপত্তি সত্ত্বেও বিরক্ত করতে থাকলে উত্তেজিত হবেন না বা গালিগালাজ করবেন না। তাকে স্পষ্ট ভাষায় না বলুন, অথবা উপেক্ষ করুন।

About Parves Ahmed

Parves Ahmed
অনুকরণ নয়, অনুসরণ নয়, নিজেকে খুঁজে চলেছি, নিজেকে জানার চেষ্টা করছি, নিজের পথে হেটে চলছি॥

Check Also

ইন্টারনেটে চ্যাটিং কি করবেন কি করবেন না

ইন্টারনেটে চ্যাটিং কি করবেন কি করবেন না

বর্তমান সময়ে আমাদের দৈনন্দিন জীবনের অনেক কিছুই প্রযুক্তি নির্ভর হয়ে পড়ছে। মোবাইল, কম্পিউটার, ল্যাপটপ ইত্যাদি …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *