Home / হাতে কলমে / কম্পিউটার / হয়ে উঠুন ফেসবুক হিরো
হয়ে উঠুন ফেসবুক হিরো

হয়ে উঠুন ফেসবুক হিরো

​ফেসবুক চ্যাট থেকে  অনলাইন স্ট্যাটাস হাইড করার নিয়ম

ফেসবুক সম্প্রতি নতুন একটা ফিচার চালু করেছে যার মাধ্যমে আপনি আপনার অনলাইন স্ট্যাটাস হাইড করতে পারবেন। আগে অনলাইন স্ট্যাটাস হাইড করতে চ্যাট অপশনটি সম্পূর্ণ বন্ধ করা লাগতো কিন্তু বর্তমানে আপনি আপনার সুবিধামতো যে কারো জন্য নিজের অনলাইন স্ট্যাটাস হাইড করতে পারবেন।
১। প্রথমে settings এ গিয়ে advance settings এ ক্লিক করুন।
২। advance settings এ আপনি দুটা অপশন পাবেন Turn on chat for all friends এবং turn on chat from selected friends।
৩। আপনি আপনার পছন্দ মতো অপশন বাছাই করে save বাটন ক্লিক করুন
ফেসবুক অ্যাকাউন্ট প্রাইভেসির খুঁটিনাটি

ফেসবুক ব্যবহারকারীদের জন্য বিভিন্ন ধরনের প্রাইভেসি অপশন রয়েছে। ফেসবুক ব্যবহারকারী তার প্রয়োজনে এসব প্রাইভেসি যুক্ত করতে পারেন বা কাস্টম প্রাইভেসি যুক্ত করতে পারেন। ফেসবুকের অ্যাকাউন্টে প্রাইভেসি সেট করার জন্য ফেসবুক অ্যাকাউন্টে লগইন করুন। এখানে উপরের ডান পাশে অবস্থিত Account>Privacy Settings-এ ক্লিক করুন। এখানে Sharing on Facebook>Recommended-এ দেখুন Customize Settings নামে একটি অপশন রয়েছে, এখানে ক্লিক করুন। কাস্টোমাইজ সেটিংস থেকে বিভিন্ন অপশনের জন্য প্রাইভেসি সেট করে দিতে পারেন। যেমন- Post by me, Family, Relationships, Interested in, Bio and Favorite quotations, website, Religious and political views, Birthday, Place you check in to, Photos and videos you’re tagged in, Permission to comment on your posts, Suggest photos of me to friends, Friend can post on my Wall, Can see Wall posts by friends, Address, IM Screen name ইত্যাদি অপশনে প্রাইভেসি সেট করে দিতে পারেন। প্রাইভেসি সেট করার ক্ষেত্রে চার ধরনের অপশন দেখতে পাবেন। যথা- Everyone, Friends of Friends, Friend Only, Customize।
কিভাবে আপনার প্রোফাইল পিকচারটি আনক্লিকেবল করবেন

আমরা কমবেশী সবাই চাই আমাদের ব্যাক্তিগত ছবি ফেসবুকের ফ্রেন্ড ছাড়া সবাই যেন দেখতে না পায়। আপনার ছবিগুলো হয়তো প্রাইভেসি দিয়ে অপরিচিত কাউকে দেখার হাত থেকে রক্ষা করতে পারবেন কিন্তু আপনার প্রোফাইল পিকচারটি এক ক্লিকে সকলেই দেখতে পাবে যারা আপনার friend নয়। তবে এই সমস্যার একটা সমাধান রয়েছে তা নিচে দেওয়া হল:
১। প্রথমেই আপনি আপনার নিজের প্রোফাইলে যান নিজের নামে ক্লিক করে।
২। এখন Photos এ ক্লিক করুন।
৩। তারপর Albums এ ক্লিক করে profile picture album সিলেক্ট করুন।
৪। আপনার প্রোফাইল ফটোটিতে ক্লিক করে edit এ চাপুন।
৫। এখন privacy settings থেকে only me সিলেক্ট করুন।
৬। এখন done editing এ ক্লিক করলেই আপনার প্রোফাইল পিকটি আনক্লিকেবল হয়ে যাবে অর্থাৎ যে আপনার ফ্রেন্ড নয় সে এই ছবি ক্লিক করে দেখতে পাবেনা।
কিভাবে FB Themes পরিবর্তন করবেন

আমরা সবাই ফেসবুক ব্যাবহার করি অনেক আগে থেকেই, কিন্তু আমরা কইজন ফেসবুক থিমস পরিবর্তন করেছি…, এইটা খুবই সহজ আপনার থেকে প্রথমে একটা GOOGLE CHROME EXTENSION এড করতে হবেঃ Stylish (ডাউনলোড লিংকঃ https://chrome.google.com/webstore/detail/stylish/fjnbnpbmkenffdnngjfgmeleoegfcffe ) , তারপর আরেকটা আই ওয়েবসাইটঃ userstyles (ডাউনলোড লিংকঃ https://userstyles.org/styles/browse/facebook) এ গিয়ে আপনার ইচ্ছা মত থিমস ইন্সটল করুন।
ফেসবুকে যা পড়ছেন তা বন্ধুদের ওয়ালে অটো পোস্ট বন্ধ করুন

আপনি যদি ফেসবুকের সোশ্যাল রিডিং অ্যাপস দিয়ে কোনো আর্টিকেল পড়ে থাকেন সেটা আপনার বন্ধুর ওয়ালেও চলে যায়। এটা অনেক সময় বিরক্তিকর হয়ে দাঁড়ায়। এটা বন্ধ করতে চাইলে-

১। উপরে হোম বাটনের পাশে Account Settings এ ক্লিক করুন।

২। এবার Apps ট্যাবে গিয়ে যে অ্যাপসের শেয়ার বন্ধুদের ওয়ালে বন্ধ করতে চান তার পাশে Edit বাটনে ক্লিক করুন।

৩। ফলে Posts on your behalf – Who can see posts this app makes for you on your Facebook timeline?’’ দেখাচ্ছে। এখন ড্রপ ডাউন মেনু থেকে ঙহষু গব সিলেক্ট করুন।

ব্যাস হয়ে গেল। এখন আপনি যা পড়ছেন তা আপনার বন্ধুদের ওয়ালে পোস্ট হবে না। এভাবে আপনি অন্য অ্যাপগুলো কনফিগার করতে পারবেন।

আপনার ফেসবুক চ্যাট বক্স কে সাজিয়ে নিন

এইটা একটা GOOGLE CHROME EXTENSION দিয়ে করতে হবা যার নাম Pretty Facebook Chat।ডাউনলোড করুন এই লিংক থেকেঃ https://chrome.google.com/webstore/detail/pretty-facebook-chat/ihamlfilbdodiokndlfmmlpjlnopaobi/

ফেসবুকে ফ্রেন্ডলিস্ট লুকানোর নিয়ম
ফেসবুকে ইচ্ছে করলেই অনেক কিছু করা যায়। যেমন- আপনার ফ্রেন্ডলিস্ট লুকাতে এবং তা আবার দেখাতেও পারবেন। সাধারণত ফ্রেন্ডলিস্ট দেখানো থাকে। ইচ্ছে করলে আপনার ফ্রেন্ডলিস্ট সহজেই লুকাতে পারবেন। এর জন্য Accounts>Privacy Settings-এ ক্লিক করুন। এখানে দেখুন Choose your privacy Settings-এর নিচে Connecting on Facebook নামে একটি অপশন রয়েছে। এখানে View Settings এর লিঙ্কে ক্লিক করুন। এখানে বেশ কিছু অপশন রয়েছে। এর মধ্যে See your friend list-এর ডান পাশে থাকা বাটনে ক্লিক করুন। এখানে Custom সিলেক্ট করুন। কাস্টম অংশ থেকে Only Me সিলেক্ট করে দিন। এর ফলে আপনি ছাড়া আপনার ফ্রেন্ড বা অন্য কেউ আপনার ফ্রেন্ডলিস্ট দেখতে পাবে না।

কাস্টম সেটিংস সম্পর্কে ধারণা

প্রাইভেসি সেটিংস থেকে কাস্টম সেটিংসে ক্লিক করলে একটি উইন্ডো প্রদর্শিত হবে। এখানে Make this visible to-এর These People অংশ থেকে চারটি অপশনের যেকোনো একটি অপশন সিলেক্ট করে দিতে হবে : Friends of Friends, Friends Only, Specific People, Only Me।

স্পেসিফিক কোনো ইউজারের জন্য কাস্টম সেটিংসটির প্রয়োজন হয়ে থাকলে কাস্টম প্রাইভেসি উইন্ডোর Hide this from-এর These people-এর ঘরে উল্লিখিত ব্যক্তি বা ইউজারের নাম সেট করে দিতে পারেন। এতে সবার জন্য সব উন্মুক্ত থাকলেও উক্ত ব্যক্তির জন্য তা হিডেন থাকবে।

এখানে ফেসবুক ব্যবহারকারীদের জন্য প্রয়োজনীয় বেশ কিছু বিষয় তুলে ধরা হলো। পরে ফেসবুকের ওপর আরো বেশ কিছু বিষয় সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করা হবে।

সহজেই জানুন কে বা কারা আপনাকে আনফ্রেন্ড করল

ফেসবুকে অ্যাড ফ্রেন্ড করলে নোটিফিকেশন আসলেও আনফ্রেন্ড করলে নোটিফিকেশন পাওয়ার কোন সুযোগ নেই। তবে, Social Fixer নামক ফেসবুক এক্সটেনশন ব্রাউজারে ইন্সটল থাকলে আনফ্রেন্ড এর নোটিফিকেশন পাওয়া যাবে মুহূর্তেই। নোটিফিকেশন ছাড়াও এর এক্সট্রা কিছু ফিচার সহজেই আপনার মন কাড়বে, ব্যবহার করেই দেখুন!

ফেসবুকের Pending Friend Request দেখা
আপনি যাদের কাছে friend request পাঠিয়েছেন কিন্তু তারা গ্রহণও করেনি রিজেক্টও করেনি সেই রিকোয়েস্টগুলো পেন্ডিং আকারে থাকে। ফেসবুকে কাকে কাকে Add request করেছেন তা আগের সেটিংসে দেখা গেলেও বর্তমানের সেটিং তা শো করেনা। তবে চাইলে ফেসবুকের একটি ছোট অ্যাপ্লিকেশনের সাহায্যে Pending friend request গুলো বের করা যায় খুব সহজেই। এজন্য, জাস্ট শুধু এখানে http://apps.facebook.com/friendrequests/ গিয়ে Allow করলেই দেখতে পারবেন আপনার Pending friend request গুলো।
ফেসবুকের ভিডিও ডাউনলোড
ফেসবুকে অনেকেই ভিডিও প্রকাশ করেন যেগুলো সরাসরি ফেসবুকে দেখা গেলেও ডাউনলোড এর কোন সুযোগ থাকেনা। ফেসবুকের ভিডিও ডাউনলোড করতে চাইলেঃ
১। প্রথমে যে ভিডিওটি ডাউনলোড করতে চান তার উপর রাইট ক্লিক করে Copy link address ক্লিক করুন।
২। এবার এই ঠিকানায় ( http://facebookvideodown.com/ ) যান।
৩। Enter the video link এ আপনার কপি করা লিঙ্কটি পেস্ট করে দিয়ে Download এ ক্লিক করুন।
হ্যাপী ডাউনলোডিং!
বন্ধ করে দিন মৃতব্যক্তির ফেসবুক অ্যাকাউন্ট
আপনার কোন ফ্রেন্ড বা আত্মীয়-স্বজন মারা গেলে তার যদি ফেসবুক অ্যাকাউন্ট থেকে থাকে, তাহলে তা বন্ধ করে দিতে পারেন।
মৃত ব্যক্তির ফেসবুক অ্যাকাউন্ট বন্ধ করতে চাইলে এই ঠিকানায় (http://www.facebook.com/help/contact.php?show_form=deceased গিয়ে সেখানকার ফরমটি পুরন করে Submit করুন।
তাহলে, ফেসবুক যাচাই করে ওই অ্যাকাউন্টটি বন্ধ করে দেবে। দেখুন, জীবিত মানুষকে মেরে ফেলতে যাবেন না !

ফেসবুক অ্যাকাউন্ট লগ আউট করতে ভুলে গেলে যা করবেন
ফেসবুকের অনেক কিছু জানা সত্ত্বেও আকস্মিক বিড়ম্বনার মধ্যে পড়ে যেতে হয়। কোন পাবলিক কম্পিউটারে বা অন্য কারও কম্পিউটারে ফেসবুক লগইন করেছেন কিন্তু আসার সময় বিদ্যুৎ চলে গেছে বা আপনি লগ আউট করতে ভুলে গেছেন। এখন তো অনেক বড় বিপদে পড়ার মত সমস্যা। যদি এমন হয় তবে এবার ঐ কম্পিউটারে ছুটে যাবার দরকার নেই। আপনি আপনার কম্পিউটার থেকেই ঐ কম্পিউটার এর ফেসবুক লগ আউট করতে পারবেন। এজন্য যা করতে হবে-
১। প্রথমে আপানার PC থেকে ফেসবুক এ লগইন করুন।
২। এবার Account Setting এ যান।
৩। তারপর Security অপশনে Active Sessions এ ক্লিক করুন
৪। এখন Current Session এ আপনার চলতি PC এর তথ্য দেখাবে আর Also Active এ শিরোনামে লগইন সক্রিয় আছে এমন কম্পিউটারের সময়, ডিভাইসের নাম, কোন শহর, আইপি কত, কোন ব্রাউজার, কোন অপারেটিং সিস্টেম তা দেখাবে।
৫। এবার ঐ আগের কম্পিউটার লগ আউট করতে End Activity ক্লিক করুন তাহলেই Computer থেকে লগ আউট হয়ে যাবে।

একপেজ এ অন্যপেজ এর text লিংক দিতে
এই Tips তাদের জন্য যারা ফেসবুকএ ফ্যানপেজ চালায় এবং যারা একধিক ফ্যান পেজ চালাতে চায় এবং একপেজে অন্য পেজএর লিংক দিতে চায়, যেখানে ulr দেখা যাবেনা শুধু বিস্তারিত, আরোজানতে এ ধরনের ক্লিক লিংক দেখাযাবে। শুরুতেই বলেনেই একটু বড় পোষ্ট বিস্তারিত লেখা আছে এজন্য, কষ্ট করে পড়লে আপনিও পারবেন আপনার পেজ এ অন্যপেজ এর text লিংক দিতে।
প্রথমেই বলতে হয় ফেসবুক HTML code support করে না তাই লিংক তৈরী করার জন্য HTML code এর লিংক পোষ্ট করলে কাজ করবেনা এবং ক্লিক লিংক তৈরী হবেনা। ফেসবুকএ ফ্যান পেজ বা নিজের প্রোফাইল পেজ এর লিংক, ফেসবুক আইডি এর উপর ভিত্তিকরে তৈরী করতে হয়। আইডি সাধারণত প্রথম অবস্হায় পেজ বা নতুন ফেসবুক একাউন্ট তৈরী করার সময় প্রফাইল URL এর সাথে থাকে নিচের লিংক দুটি লক্ষ্য করুনঃ-
http://www.facebook.com/profile.php?id= 164754370333320

http://www.facebook.com/profile.php?id= 186823884763420
আমরা অনেকেই ফেসবুক পেজ বা নতুন ফেসবুক একাউন্ট তৈরী করার পর নিজেদের সুবিধার্থে লিংকটিকে পরিবতন করি নিচের লিংক দুটি লক্ষ্য করুনঃ
http://www.facebook.com/কারিনাফানপেজ

http://www.facebook.com/commentkorina

এক্ষেত্রে আইডি এর জায়গায় ইউজারনেম “aamirkhanfanspage” এবং ”commentkorina” ব্যবহার করা হয়েছে। লিংক তৈরী করার আগে আমাদের আইডি সংগ্রহ করতে হবে।
জেনে নেই তা কিভাবে করব।
যারা URL লিংক পরিবতন করেননি তারা browser এর address bar এ যে URL দেয়া আছে সেখান হতে সংগ্রহ করে নিন । আর যাদের URL লিংক পরিবতন করা হয়েগেছে তারা নিচের ধাপ গুলো অনুসরন করুনঃ
ক. প্রথমে আপনি ফেসবুকএ লগইন করুন।

খ. ফ্যানপেজ বা নিজের প্রফাইল এ যান, যেটার আইডি যানতে চান।

গ. এবার http://www.facebook.com/ এর “/”এর পর যা আছে (ইউজারনেম) তা কপি করুন বা লিখে নিন।

ঘ. address bar এ https://graph.facebook.com/ টাইপ করুন এবং “/” এর পর কপি করা বা লিখে রাখ (ইউজারনেম) নামটি টাইপ করুন । লিংকটি হবে ”https://graph.facebook.com/ইউজারনেম” এরকম। এবার এন্টার দিন লিংকটিতে যাবার জন্য। যে পেজ আসবে সেখানে “id”: “1426159433” এধরনের আইডি পাবেন এবং এটিই হচ্ছে আপনার প্রোফাইল বা ফ্যন পেজ এর ক্ষেত্রে ফ্যন পেজ এর আইডি। আবারও একটা কথা বলছি ফ্যনপেজ এর ক্ষেত্রে ফ্যনপেজ এর ইউজারনেম এবং প্রোফাইল এর ক্ষেত্রে প্রোফাইল ইউজারনেম ব্যবহার করতে হবে আইডি পাবার জন্য।
আইডি তো পেলেন এবার তা ব্যবহার করে লিংক তৈরী করতে নিচের পদ্ধতি অনুসরন করুনঃ-

ক. প্রথমে পোষ্ট করার জন্য STATUS এর নিচে ক্লিক করুন যেখানে “Write Something…” ফ্যনপেজ এর ক্ষেত্রে এবং “What’s on your mind…” নিজের প্রোফাইল পেজ এর ক্ষেত্রে লেখা আছে সেখানে ক্লিক করুন।

খ. এবার নিচের কোডটি টাইপ করুন এবং আইডি এর জায়গায় যে আইডি এর আগে সংগ্রহ করেছেন তা দিন এবং পোষ্ট করুন। কাজশেষ দেখেন নীল রং এর ক্লিক লিংক তৈরী হয়েছে। @@[0:[আইডি:1: Your Text Here]] @[আইডি:]

ফেসবুকে লাইভ ভিডিও স্ট্রিম করবেন যেভাবে

ফেসবুকের ইদানিং কালের একটা জনপ্রিয় ফিচার হচ্ছে ফেসবুক লাইভ ভিডিও। কিছু দিন আগে পর্যন্ত এটা শুধু ভেরিফাইড পেজ থেকে করা যেত, এখন সবার জন্য উন্মক্ত। এই টিপস এ দেখাবো কিভাবে নিজের টাইমলাইন থেকে লাইভ ভিডিও স্ট্রিম করবেন। আপনার ফ্রেন্ডরা দেখবে “Someone is now live” ব্যাপারটা কেমন হবে?
যা লাগবেঃ
১. ভিডিও স্ট্রিমিং সফটওয়্যার Open Broadcaster নামিয়ে ইন্সটল করে রাখুন
যা যা করবেনঃ
১. প্রথমে facebooklivestream.tk অথবা facebooklivestream.kolahall.com লিঙ্কে যান। কোন ধরনের পপআপ, অ্যাড, ম্যালওয়ার নাই।

২. একটু নিচে নামলেই দেখবেন “Live stream facebook – Click here” লেখা বাটন। সেটাতে ক্লিক করলে একটা নতুন উইন্ডো আসবে। সেখানে “Next” চাপুন। **যদি পপ আপ ব্লকের কারনে উইন্ডো না আসে তাহলে এই সাইটে জন্য আন ব্লক করুন

৩. আগের উইন্ডোটা Next চাপার পর অটো ক্লোজ হয়ে যাবে এবং আরেকটা উইন্ডো ওপেন হবে,ওপেন না হলেও সমস্যা নেই।  এখন সাইটে লক্ষ্য করলে দেখবেন আগের খালি জায়গা গুলো কিছু তথ্য দিয়ে ভরা “URL host or stream” “Server URL” “Stream Key”। নতুন ওপেন হওয়া উইন্ডো তেও এই তথ্য গুলো থাকতো।এখন “Preview or Repost” বাটনে ক্লিক করুন। আমাদের  “Server URL” “Stream Key” এই দুটো লাগবে।

৪. এবার আগে ইন্সটল করে রাখা Open Broadcaster সফটওয়্যার টা ওপেন করুন। এবং Settings এ প্রবেশ করুন

৫. “Broadcast Settings” এ যান। সেখানে “FMS/Server URL” & “Stream Key” সাইট থেকে কপি করে এনে পেষ্ট করুন। তারপর OK চেপে সেভ করুন।

৬. এবার সফটওয়্যার কে বলে দিতে হবে কি স্ট্রিম করবেন, তার জন্য “Sources” বক্স এ Right Click করে Add>Monitor Capture . আমি আমার মনিটর দেখাব তাই এটা সিলেক্ট করেছি। ওয়েবক্যাম থাকলে সেটা ওখানে লিস্টেড থাকবে নিচে।

৭. Preview Stream এ দেখে নিতে পারেন যে কেমন দেখাবে। সবশেষে Start Streaming ক্লিক করে একটু অপেক্ষা করুন এবং শেষবার যে উইন্ডো ওপেন করেছিলেম তাতে ফিরে যান। দেখবেন আপনার স্ট্রিম অনলাইন দেখাবে। সেখানে টিউন এ যা লেখার লিখে “Go Live” এ ক্লিক করুন। সব কিছু ঠিক ঠাক থাকলে আপনার ভিডিও লাইভ হয়ে যাবে।

কিভাবে অপ্রয়োজনীয় ফেসবুক অ্যাপস্‌ রিমুভ করবেন?
বর্তমান সময়ে আমরা যারা অন্তত ইন্টারনেট এর দুনিয়ায় ঘুড়ে-বেড়াই তাদের সকলের ন্যূনতম একটি ফেসবুক একাউন্ট আছেই। অনেকেরতো আবার কয়েকটিও থাকে। যাক, ওসব কথায় গিয়ে আপনাদের সময় নষ্ট করতে চাচ্ছি না। আমরা অনেকেই প্রায় সময় বিভিন্ন অ্যাপস্‌ ব্যবহার করি কিন্তু সেগুলো কিভাবে আবার রিমুভ করতে হয় তা আমরা জানি না। আজকের এই বিষয়ে আপনাদের অবগত করার জন্যেই আমার এই ছোট্ট প্রয়াস। তাহলে আসুন দেখে নেই, কিভাবে অপ্রয়োজনীয় ফেবু (ফেসবুক) অ্যাপস্‌ রিমুভ করা যায়।
১) প্রথমে আপনার ফেবু (ফেসবুক) একাউন্ট এ প্রবেশ করুন। তারপর একটু উপরের ডান কোণায় লক্ষ্য করুন। দেখুনতো আপনার হোমপেজ বাটনের পাশেই দেখুন একটি স্টার (*) চিহ্ন রয়েছে। ওটিতে ক্লিক করে “Account settings” এ ক্লিক করুন। (ছবির মত)

২) এবার বাম দিকে একটু নিচে দেখুন। কি “Apps” অপশন দেখতে পাচ্ছেন কি? যদি দেখেই থাকেন তাহলে এবার ওখানে ক্লিকান। এরপর ডান দিকে আপনার ব্যবহৃত সকল অ্যাপস্‌ এর লিস্ট দেখতে পাবেন।

৩) প্রতিটি অ্যাপস্‌ এর ডান পাশেই একটি ক্রস (x) চিহ্ন দেখতে পাবেন। যেটি রিমুভ করতে চান সেটির উপর ক্রস বাটন প্রেস করুন। ছবির মত স্ক্রীণ দেখতে পাবেন। বক্সটিতে টিক চিহ্ন দিন এবং “Remove” বাটনে প্রেস করুন। ব্যস।

হয়ে গেল আপনার অপ্রয়োজনীয় ফেবু অ্যাপস্‌ রিমুভ। এভাবে অপ্রয়োজনীয়গুলো রিমুভ করে দিন।

ফেসবুক আইডির নিরাপত্তায় ৭ টি বিষয়

আজকের দিনের টেক সচেতন একজন ব্যাক্তিকে যদি জিজ্ঞেস করেন তার ফেসবুক আইডি আছে কিনা? এবং উত্তর না হবে এটা খুজে পাওয়া ভার। কারন আজকাল ব্যক্তিগত প্রয়োজন থেকে শুরু করে ব্যবসায়িকসহ প্রায় সব কাজেই এখন ফেসবুক চাহিদা মিটাচ্ছে। এই যেমন চ্যাটিং, ভয়েস কল কিংবা সবচেয়ে বড় ব্যাপার হল দূরে থেকেও কাছে থাকা। আর ফেইসবুকের জনপ্রিয়তার প্রমান আপনারা গত কয়েক বছরের দিকে তাকালেই পেয়ে যাবেন। ইন্টারনেট ওয়ার্ল্ড জায়েন্ট, গুগলকে কে না চিনে, সেই গুগলকে পিছনে ফেলে সবচেয়ে বেশি ভিজিটেড সাইট হিসেবে উঠে এসেছে ফেইসবুক । অবশ্য ২০১০ এ এই ফেইসবুক ১০ এর ঘরেই ছিলো, এবং বিগত ৩-৪ বছর তারা সামনেই আগাচ্ছে। ফেবুর জনপ্রিয়তার প্রতিদ্বন্ধি হিসেবে গুগল প্লাস মাঠে আছে তাই দেখা যাক গুগল আর এফবির খেলায় কে যেতে।
ফেসবুক আইডির নিরাপত্তায় ৭ টি বিষয়
খেলায় যেই জিতুক শেষ পর্যন্ত আজকে আমরা আলাপ করবো ফেইসবুক আইডির নিরাপত্তা নিয়ে। নিচে দেখা যাক এর প্রতিরোধের কিছু উপায়, যা অবলম্বন করলে হয়তো আপনি ক্ষতি থেকে আপনার আইডি রক্ষা করতে পারবেননা, কিন্তু অনেকটা সুবিধাজনক পর্যায়ে রাখতে পারবেন।
১. হুমকি ধামকি চলবেনাঃ
কাউকে ভুলেও, মজা করেও ফেইসবুকে থ্রেট দেওয়া যাবে না। আবার গালিগালাজ করা থেকে ও বিরত থাকতে হবে। নাহলে কেউ যদি রিপোর্ট করে আইডির আশা ছেড়ে দিতে হবে।
২. শক্তিশালী পাশওয়ার্ড প্রয়োগঃ
কোন আইডির সিকিউরিটি নিশ্চিত করতে মিশ্র ধরনের পাশওয়ার্ড এর দিকে নজর দিতে হবে। মানুষ সবসময় যে কমন ভুলটা করে তা হল নিজের ডিটেলস দিয়ে পাশওয়ার্ড দেয়, কিন্তু তা মোটেও নিরাপদ না। যেমনঃ নিজের নাম, পরিবারের কারো নাম, জন্ম তারিখ কিংবা মোবাইল নাম্বার এ ধরনের তথ্যাদি। মনে রাখবেন পাশওয়ার্ড দিতে গেলে বড় হাতের এবং ছোট হাতের অক্ষর যেকোন অংক, স্পেস ইত্যাদি ব্যবহার করবেন। আর স্পেশাল চিহ্ন ও রাখতে পারেন। যথাঃ *, %, # ইত্যাদি অন্তর্ভুক্ত করার চেষ্টা করুন। পাসওয়ার্ডের মোট অক্ষর আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। কমপক্ষে ৬ সংখ্যার পাশ দিতে হলেও চেষ্টা করুন যাতে মিনিমাম ১০-১৫ অংক বিশিষ্ট হয়। আর পাসওয়ার্ডকে যাতে ভুলে না যান সেজন্য অন্য কোথাও সংরক্ষন করুন।
৩. নিয়মিতভাবে পাশওয়ার্ড পরিবর্তনঃ
নিয়মিত ভাবে নতুন পাসওয়ার্ড দিন, দেখবেন তাতে পাশ ফাস হলেও ভয়ের কিছু থাকবেনা। আর পাসওয়ার্ড ভুলে গেলে Forgot Password নামক অপশনটিতো অপেক্ষা করছেই আপনাকে হারানো পাশ ফিরে পেতে।
৪. ব্যাক্তিগত তথ্য সম্বন্দে সাবধানতাঃ
প্রোফাইলে এমন কোন তথ্য দিবেন না যাতে দুষ্টচক্র এর হাতে আপনার তথ্য পাচার হয়ে যায়, আর সেই তথ্য থেকেই আপনার পাশওয়ার্ড ব্রেক হয়ে যায়। এক্ষেত্রে নিরাপদ হল সেইসব তথ্য কাউকে না দেওয়া। এবেপারটা ব্যবহার করে আমি নিজে ৬ টা আইডি চেষ্টা করে ১০০% সফল হয়েছি। সো ডন্ট ডু দ্যাট, অবশ্য আমি তাদের দূর্বলতা চেক করার উদ্দেশ্যেই সেটা করেছি।
৫. অপরিচিত/ফেক একাউন্টকে বন্ধু বানাবেন নাঃ
একটা অপরিচিত ব্যাক্তিকে কখনোই রিকোয়েষ্ট বা এক্সেপ্ট করা উচিত নয়, কারন এটা আপনার জন্য ক্ষতিকর হয়ে দাড়াতে পারে। তাই ছবিহীন প্রোফাইল বা প্রয়োজনীয় ইনফো ছাড়া কাউকে এড করা কোন ভাবেই উচিত নয়।
৬. লিঙ্ক ক্লিকে সতর্কতাঃ
ধরুন আপনাকে কেউ একজন একটা লিঙ্ক দিল, কিন্তু আপনাকে সেই লিঙ্কে ক্লিক করার আগে বেশ কয়েকবার চিন্তা করা উচিত। যেমন এমন হল এটা পিশিং লিঙ্ক, বা কুকি ষ্টিলিং স্ক্রিপ্ট বা বিপদ জনক কিছু, যা আপনার যেকোন প্রাইভেসি ভাংতে পারে।
৭. ইমেইল সূরক্ষা ও এর সতর্ক ব্যবহারঃ
ইদানিং সবচেয়ে বেশি হ্যাক হয় ইমেইল এর মাধ্যমে, তাই ইমেইল এড্রেসের কোন লিঙ্কে যদি ব্যাক্তিগত তথ্য চায়, তাহলে ভুলেও সেই খানে কিছু দিবেননা, আর ফেইসবুকের হ্যাক কিন্তু ইমেইল দিয়েই করা যায়, তাই আপনার ইমেইল এড্রেসের পাশওয়ার্ডও অনেক ষ্ট্রং করবেন, নাহলেতো বুঝতেই পারছেন।
আর সবসময় খেয়াল রাখবেন www.facebook.com এর লিঙ্ক ছাড়া আর বাকি সব লিঙ্ক ফেইক যেমন www.facebook.com। কি দেখতে একই মনে হচ্ছে তাইনা, কিন্তু বিপদ এখানেই
কাজেই কখনো এই ধরনের মেইলে ক্লিক করবেন না। কারন এগুলো ফিশিং সাইট, যা ফেইক অর্থাৎ ভুয়া।
এই কয়েকটা পয়েন্ট কাজে লাগিয়ে আশাকরি আপনি বেশ শক্ত একটা অবস্থানে যেতে পারবেন, আপনার আইডিকে ৬০% সেফার বলতে পারবেন

About Parves Ahmed

Check Also

স্মৃতিশক্তি বাড়ানোর কৌশল

স্মৃতিশক্তি বাড়ানোর কৌশল

পর্যাপ্ত ঘুম রাতে ৬ ঘণ্টার কম ঘুম হলে তা বার্ধক্য প্রক্রিয়া ত্বরান্বিত করতে মস্তিষ্কে বাঁধার …

One comment

  1. রাইসা ইসলাম

    চমৎকার একটি পোস্ট । খুবই ভাল লাগলো পোস্ট টা পড়ে । সামনে এই বিষয়ে আর ও নিউ নিউ পোস্ট আশা করছি ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *